ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০ ()
শিরোনাম
Headline Bullet স্ত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের লোভ দেখিয়ে খুন! Headline Bullet রিজেন্ট ও জেকেজির গডফাদাররা ধরাছোঁয়ার বাইরে কেন, প্রশ্ন রিজভীর”: Headline Bullet লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বেগম নুর-এ-জান্নাত রুমিকে রংপুর বদলি করা হয়েছে:” Headline Bullet গৌরীপুরে শোক র‌্যালি: Headline Bullet গাইবান্ধায় নারী ও শিশু নির্যাতনকারীদের শাস্তির দাবীতে পিবিআই কে স্মারকলিপি প্রদান “: Headline Bullet কুমারখালীতে শ্রমিকদের শ্রমের না দিয়ে হয়রানি”: Headline Bullet শ্রমিকনেতা খুন: শ্রমিকদের আন্দোলনে সুরমা থানার ওসি বদলি”: Headline Bullet কুমারখালী (কুষ্টিয়া)”: শহরের দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতায় জনদূর্ভোগ। উপজেলা পরিষদের গেটের সামনের সড়ক থেকে ছবিটি তোলা Headline Bullet কুমারখালীর চাঁপড়া ইউনিয়নের সাঁওতা গ্রাম থেকে ৩২ টি গোখড়া সাপের বাচ্চা উদ্ধার”: Headline Bullet খুলনায় হচ্ছে’শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়:

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি তরুণের আত্মহত্যা

মালয়েশিয়ায় মো. মোকারম মিয়া (২২) নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশি গলায় গামছা পেচিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার (২১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় সাড়ে বিকেল ৪টায় এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে মালয়েশিয়ান পুলিশ গিয়ে ঝুলন্ত মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহত মোকারম নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের পূর্বহরিপুর গ্রামের রবিউল্লাহ্ মুন্সির বাড়ির মো. সিদ্দিক মিয়ার ছেলে। তিনি মালয়েশিয়ায় একটি কম্পানিতে পরিচ্ছন্নতা কর্মী হিসাবে কাজ করতেন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মোকারম বেলাব উপজেলার এক দালালের মাধ্যমে আড়াই বছর পূর্বে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমায়। সেখানে তিনি একটি কম্পানিতে অল্প বেতনে চাকরি করতেন। ছয় মাস পূর্বে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে একই ইউনিয়নের মতিউরনগর গ্রামে তাকে বিয়ে করান স্বজনরা। সাম্প্রতিক তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ায় চিকিৎসার করাতে একই ইউনিয়নের মুছাপুর গ্রামের প্রবাসী হাবিবুল্লাহ কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা ধার নেন। নির্ধারিত সময়ে তিনি দেনার টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায়। তার ওপর মানসিক চাপ প্রয়োগ করতে থাকেন হাবিবুল্লাহ। এক পর্যায়ে তিনি মোকারমের বেতনের টাকা উত্তোলনের কার্ডটিও ছিনিয়ে নেন। এ ঘটনার পনেরো দিন পর গত শনিবার সিলিং ফ্যানের সঙ্গে মোকারমের ঝুলন্ত দেখতে পান তার সহকর্মীরা। পরে মালয়েশিয়ান পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে সিদ্দিক মিয়া জানান, শুক্রবার দুপুরে মোবাইলে ছেলে সঙ্গে তার শেষ কথা হয়। তখন মোকারম তার বাবাকে অনুরোধ করেন দ্রুত হাবিবুল্লাহকে ৬০ হাজার টাকা জোগাড় করে দিতে।   


     এই বিভাগের আরো খবর