ঢাকা, সোমবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২৩ ()
শিরোনাম
Headline Bullet রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের অভিযানে হিরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার Headline Bullet কুষ্টিয়া ইবি থানার ওসি আননূর যায়েদের হস্তক্ষেপে আব্দালপুর ইউনিয়নের শাহাপুর গ্রামের সামাজিক কোন্দলের মিমাংস Headline Bullet বালিয়াকান্দিতে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদরাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগীতার উদ্বোধন Headline Bullet বরগুনার তালতলী প্রেসক্লাবে আওয়ামী লীগ নেতা শিহাবের মতবিনিময় সভা Headline Bullet রাজবাড়ীতে ২ দিনব্যাপী বাংলা উৎসব শুরু Headline Bullet রাজবাড়ীতে বাংলা উৎসব উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন Headline Bullet রাজবাড়ীতে ধানখেতে পড়েছিল শতবর্ষী বৃদ্ধার লাশ Headline Bullet বালিয়াকান্দিতে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ইউএনও’র পরিচিতি সভা Headline Bullet রাজবাড়ীতে বিধবাকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে মোহাম্মদপুর থেকে একজন গ্রেপ্তার Headline Bullet গোয়ালন্দে ১৬ শত অসহায় নারীদের মধ্যে কম্বল বিতরণ

ঢাকা বাণিজ্য মেলায় ৬ কোটি টাকার ভ্যাট আদায়

রাজধানীতে অনুষ্ঠিত সদ্য শেষ হওয়া ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ১০টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতা হিসেবে নির্বাচিত করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। ঢাকা পশ্চিম ভ্যাট বা মূসক কর্তৃপক্ষ এক বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সেরা ভ্যাটদাতা প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা প্রদান করবে।

ঢাকা পশ্চিমের ভ্যাট কমিশনার ড. মইনুল খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বাণিজ্য মেলা থেকে হিসাব মতো ভ্যাট আদায়ে আমরা কাজ করছি। সেরা ভ্যাটদাতাদের সম্মাননা দেওয়া হবে। রাজস্ব ফাঁকিবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ঢাকা পশ্চিম ভ্যাট কমিশনারেট সূত্র জানায়, এবার সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতা নির্বাচিত হয়েছে ওয়াল্টন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ। এরপর রয়েছে এসকোয়ার ইলেকট্রনিকস লি. ও সারাহ লাইফ স্টাইল। এই তিনটি প্রতিষ্ঠান যথাক্রমে ৩৭ লাখ ৩৬ হাজার টাকা, ৩৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকা ও ৩২ লাখ পাঁচ হাজার টাকার ভ্যাট পরিশোধ করেছে।

মেলার অন্যান্য যারা সম্মাননা পাবে—র‍্যাংগস্ ইলেকট্রনিকস, হাতিল কমপ্লেক্স, মাল্টি লাইন ইন্ডাস্ট্রিজ, ফিট এলিগেন্স, নাভানা ফার্নিচার, ফেয়ার ইলেকট্রনিকস এবং বংগ বেকারস। মেলায় মোট ভ্যাট আদায় হয়েছে ছয় কোটি ৪৬ লাখ টাকা। অধিকাংশ পণ্যে খুচরা পর্যায়ে ৫ শতাংশ ভ্যাট প্রযোজ্য।

গত বছর মেলায় এই ভ্যাট আদায় হয়েছিল সাত কোটি দুই লাখ টাকা। এবারের মেলায় স্টলের সংখ্যা ও দর্শনার্থীদের সংখ্যা হ্রাস পাওয়ায় ভ্যাট কর্তৃপক্ষের নজরদারি সত্ত্বেও ভ্যাট আদায় কিছুটা কম হয়েছে।

মেলায় এবার ঢাকা পশ্চিম ভ্যাট কমিশনারেট থেকে আটটি টিম নজরদারি করে। মেলায় ভ্যাট ফাঁকি দেওয়ায় ২৯টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা করা হয়। এতে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।

উল্লেখ্য, এ বছর স্টলের সংখ্যা ছিল ৪৮৭, যা আগের বছর ছিল ৫৬৯টি। অন্যদিকে চলতি বছরের দর্শনার্থীর সংখ্যা ২৩ লাখ। অন্যদিকে আগের বছর এই সংখ্যা ছিল ৩৫ লাখ।

তা ছাড়া, এনবিআর চলতি বছরের মেলায় কেন্দ্রীয় নিবন্ধনের ক্ষেত্রে কেবল ৫ শতাংশ ট্রেড ভ্যাট আদায়ের নির্দেশনা দেয়। এতে কেবল হাতিল ফার্নিচার থেকে প্রায় ৭৮ লাখ টাকা কম আহরণ হয়েছে।


     এই বিভাগের আরো খবর