ঢাকা, রবিবার, ২২ মে, ২০২২ ()

খোকসায় গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

সজল রায়

কুষ্টিয়া জেলার খোকসায় গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্য হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে পরকীয়ার জেড়ে তাকে হত্যা করা হতে পারে। ঘটনাটি ঘটেছে খোকসা উপজেলার কমলাপুর মোল্লাপাড়া গ্রামে। নিহত গৃহবধুর নাম সেলিনা খাতুন (৩৫)।

খোকসার কমলাপুর মোল্লাপাড়া গ্রামের গৃহবধু সেলিনা খাতুন (৩৫) নিজ ঘরের বিছানায় তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। বুধবার দুপুরে রহস্যজনক এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। গৃহবধুর মৃত্যুর ঘটনার সময় তার সপ্তম শ্রেনীতে পড়ুয়া ছেলে রহিম (১২) বাড়িতেই ছিলো।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কমলাপুর মোল্লাপাড়া গ্রামের রহিজ মন্ডলের (৪২) স্ত্রী সেলিনা খাতুনের (৩৪) সংগে খোকসা রাজিনাথপুর গ্রামের জনৈক টিউবয়েল মিস্ত্রী বিল্লাল এর দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল তারা নিজেদের দূ-সম্পর্কের আত্মীয় বলে পরিচয় দিতো এবং গৃহবধুুর স্বামী রহিজ মন্ডলের সাথে বিল্লাল টিউবয়েল স্থাপনের কাজ করতো এবং রহিজের বাড়িতে নিয়মিত যাতায়াত করতো। সেই সুবাদে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

এ ঘটনায় নিহত গৃহবধুর সপ্তম শ্রেনীতে পড়ুয়া ছেলে রহিম (১২) বলেন, বিল্লাল দুপুরে তাদের বাড়িতে এসেছিলেন এবং সে সময় তার মায়ের সাথে বিল্লালের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তার মা ঘরের মধ্যে চলে যায় এবং ঘরের দড়জা বন্ধ করে দেন। এ সময় বিল্লাল তাকে পান কিনতে দোকানে পাঠায় সে দোকান থেকে ফেরার পর বিল্লাল তাকে বলেন, আমি এসেছিলাম এটা তোর বাবাকে বলার দরকার নাই তোর মা ঘরে শুয়ে ঘুমিয়ে আছে। এই বলে সে চলে যায়।

এ বিষয়ে গৃহবধুর জাঁ, (ভাসুরের স্ত্রী ) সবুরা খাতুন বলেন, বিল্লালের সাথে ওর সম্পর্ক ছিল ঐ সময় বাড়ি থেকে তাদের কথাকাটি হচ্ছে এটা শুনেছি কিন্তুু খুব একটা গুরুত্ব দেইনি কারন বিল্লালের সাথে মাঝে মাঝেই এ রকম হতো। তবে ঘটনার সময় গৃহবধুর স্বামী বাড়িতে ছিলেন না । তবে ঘটনাটি ঘটেছে শ্বাসরোধ করে এটা প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়।

এ ঘটনায় খোকসা থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আশিকুর রহমান ও মামুনুর রশিদ (ওসি তদন্ত) জানান, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে প্রাথমিক তদন্তে পেয়েছি। আর ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়াতে প্রেরণ করা হবে। এ ব্যাপারে মামলা হবে এবং দোষীকে দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।


     এই বিভাগের আরো খবর