ঢাকা, সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ()
শিরোনাম
Headline Bullet বালিয়াকান্দিতে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির নামে প্রতারনার চেষ্টা Headline Bullet বালিয়াকান্দিতে বিট পুলিশিং বিষয়ক আলোচনা সভা Headline Bullet রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে দুই উপজেলার যোগাযোগ সড়কে হেলে পড়েছে ত্রাণের ব্রীজ Headline Bullet HWPL এর ৭তম বিশ্ব শান্তি সম্মেলন অনলাইনে অনুষ্ঠিত Headline Bullet কুষ্টিয়া সদর উপজেলার মনহরদিয়া ইউনিয়ন কৃষক লীগের কমিটি গঠনঃ Headline Bullet ভিন্ন দল থেকে আসা অতিথি পাখিদের আওয়ামী লীগের দরকার নেই … ডা. হাছান মাহমুদ এমপিঃ Headline Bullet রাজবাড়ীর পাংশায় অষ্টম শ্রেণির মাদ্রাসাছাত্র নিখোঁজঃ Headline Bullet পারিবারিক কলহের জের ধরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাইয়ের মৃত্যু Headline Bullet বাঁশের ভেলায় চরে আটরশি দরবার শরীফে ছুটছেন ভক্তরাঃ Headline Bullet রাজবাড়ীর পদ্মার ১৮ কেজির কাতলা বিক্রি হলো ২৫ হাজার টাকায়।

কুষ্টিয়া জেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে পেঁয়াজ চাষ

বাজারে পেঁয়াজের দাম চড়া থাকায় এবার পশ্চিমের জেলাগুলোতে রেকর্ড পরিমাণ জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। চাষিরাও বাম্পার ফলন আশা করছে।

ইতিমধ্যে আগাম চাষ করা হালি পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। এতে দাম কিছুটা কমেছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যশোর আঞ্চলিক অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি রবি মৌসুমে যশোর জেলায় ১ হাজার ৪৪০ হেক্টরে, ঝিনাইদহে ৮ হাজার ৬৫০ হেক্টরে, মাগুরায় ৯ হাজার ১৫ হেক্টরে, কুষ্টিয়ায় ১২ হাজার ১৪০ হেক্টরে, চুয়াডাঙ্গায় ৯৫০ হেক্টরে ও মেহেরপুরে ২ হাজার ২৫ হেক্টরে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৩ হাজার ৮১১ হেক্টর বেশি জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। মাগুরা ও ঝিনাইদহ জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, কোনো কোনো মাঠে শুধু পেঁয়াজ আর পেঁয়াজ। চাষিরা খেত পরিচর্যায় ব্যস্ত। ইতিমধ্যে আগাম চাষ করা পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। মঙ্গলবার দেশের অন্যতম প্রধান পেঁয়াজের হাট ঝিনাইদহের শৈলকুপায় পাইকারি প্রতি কেজি মুড়িকাটি পেঁয়াজ ৭৫ টাকা থেকে ৮০ টাকা দরে বিক্রি হয়। আর নতুন ওঠা হালি পেঁয়াজ ১০০ টাকা থেকে ১০২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। পাইকারি বাজারে এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিপ্রতি ৫০ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে। খুচরা দাম কমেছে কেজিপ্রতি ৩০-৪০ টাকা। ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার সোন্দাহ গ্রামের চাষি হাবিবর রহমান জানান, গত বছর সাড়ে পাঁচ বিঘাতে পেঁয়াজ চাষ করেন। বিঘাপ্রতি ৮০ মণ করে ফলন হয়েছিল। পেঁয়াজ ওঠার পর দাম ৭০০/৮০০ টাকা ছিল। সর্বশেষ তিনি তিন মণ পেঁয়াজ ৮ হাজার টাকা মণ দরে বিক্রি করেন। ভালো লাভ হয়েছিল। এবারো সাড়ে পাঁচ বিঘাতে পেঁয়াজ চাষ করেছেন। শৈলকুপা উপজেলা কৃষি অফিসার সনজয় কুমার কুন্ডু বলেন, এ উপজেলায় ৭ হাজার ১০০ হেক্টরে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। ১ লাখ ৪০ হাজার টন পেঁয়াজ উৎপাদন হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


     এই বিভাগের আরো খবর