ঢাকা, রবিবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২০ ()
শিরোনাম
Headline Bullet ইশরাকের বাসায় গিয়ে ভোট চাইলেন শেখ ফজলে নূর তাপস Headline Bullet অবৈধ দখলে যাওয়া রেলওয়ের সম্পত্তি ফিরিয়ে আনা হবে- রেলমন্ত্রী Headline Bullet মন্ত্রিত্ব ছেড়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নামুন : ওবায়দুল কাদেরকে ফখরুল Headline Bullet থানার সামনেই রিক্সা থেকে চাদাঁবাজি,মোড় ঘুরলেই ১০ টাকা Headline Bullet বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে- বাণিজ্যমন্ত্রী Headline Bullet তিন খানের কখনো একসঙ্গে অভিনয় না করার রহস্য ফাঁস Headline Bullet ধারাবাহিক সাফল্যের আরো একবছর :হাছান মাহমুদ Headline Bullet ঢাবি ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর বর্ণনানুযায়ী ধর্ষককে খুঁজছে পুলিশ Headline Bullet বিশ্বনেতারা আসছেন বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে Headline Bullet তারেকসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা, পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ- মহানগর হাকিম আদালত

কুষ্টিয়ার বাজারে ভেজাল পণ্যের ভিড়ে মৌবন পণ্য পরীক্ষা জরুরী…?


ষ্টাফ রিপোর্টার ॥

কুষ্টিয়ার বাজারে ভেজাল পণ্যের ভিড়ে মৌবন পণ্য পরীক্ষা জরুরী হয়ে পড়েছে বলে ভোক্তারা অভিযোগ করেছে । উচ্চ আদালতের আদেশ অনুযায়ী ৫২টি ভেজাল পণ্য হলো সিটি অয়েলের সরিষার তেল, গ্রিন বি চিংয়ের সরিষার তেল, শবনমের সরিষার তেল, বাংলাদেশ এডিবল অয়েলের সরিষার তেল, কাশেম ফুডের চিপস, আরা ফুডের ড্রিংকিং ওয়াটার, আল সাফির ড্রিংকিং ওয়াটার, মিজান ড্রিংকিং ওয়াটার, মর্ণ ডিউয়ের ড্রিংকিং ওয়াটার, ডানকান ন্যাচারাল মিনারেল ওয়াটার, আরার ডিউ ড্রিংকিং ওয়াটার, দীঘি ড্রিংকিং ওয়াটার,
প্রাণের লাচ্ছা সেমাই, ডুডলি নুডলস, শান্ত ফুডের সফট ড্রিংক পাউডার, জাহাঙ্গীর ফুড সফট ড্রিংক পাউডার, ড্যানিশের হলুদগুঁড়া, প্রাণের হলুদগুঁড়া, ফ্রেশের হলুদগুঁড়া, এসিআইর ধনিয়াগুঁড়া, প্রাণের কারি পাউডার, ড্যানিশের কারি পাউডার, বনলতার ঘি, পিওর হাটহাজারী মরিচগুঁড়া, মিষ্টিমেলা লাচ্ছা সেমাই, মধুবনের লাচ্ছা সেমাই, মিঠাইর লাচ্ছা সেমাই, ওয়েল ফুডের লাচ্ছা সেমাই,

এসিআইর আয়োডিনযুক্ত লবণ, মোল্লা সল্টের আয়োডিনযুক্ত লবণ, কিংয়ের ময়দা, রূপসার দই, মক্কার চানাচুর, মেহেদীর বিস্কুট, বাঘাবাড়ীর স্পেশাল ঘি, নিশিতা ফুডসের সুজি, মঞ্জিলের হলুদগুঁড়া, মধুমতির আয়োডিনযুক্ত লবণ, সান ফুডের হলুদগুঁড়া, গ্রীন লেনের মধু, কিরণের লাচ্ছা সেমাই, ডলফিনের মরিচগুঁড়া, ডলফিনের হলুদগুঁড়া, সূর্যের মরিচগুঁড়া, জেদ্দার লাচ্ছা সেমাই, অমৃতের লাচ্ছা সেমাই, দাদা সুপারের আয়োডিনযুক্ত লবণ, মদীনার আয়োডিনযুক্ত লবণ, নুরের আয়োডিনযুক্ত লবণ।
এই ৫২টি ব্র্যান্ডের খাদ্যপণ্য মানহীন প্রমাণিত হওয়ায় দ্র্রুত বাজার থেকে সরিয়ে ধ্বংস করতে উচ্চ আদালতের রায়ের পরও বাজারের প্রতিটি দোকানে বিক্রি হচ্ছে পণ্যগুলো। আর যে সব পন্যগুলো প্রমানিত হয়েছে তাদের পন্য সারা দেশের মানুষ চোখ কান বুজে খাদ্য সামগ্রী হিসেবে ব্যবহার করে থাকে । আর সাধারন জনগন বলছে এসব পন্যের কাছে মৌবনের পন্য কিছুই না । তাই মৌবন পন্য জরুরী ভাবে পরীক্ষা করার জোর দাবি জানিয়েছে ভোক্তারা । স্থানীয়রা জানিয়েছে, মৌবন কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন ভাবে ম্যনেজ করে তাদের মষলা ও সেমাই বাজারে ছাড়ছে । ব্যবসায়ীরা বলছে দেশের সেরা ব্যান্ডের মধ্যে পুষ্টি, তির রুপচাদা, সহ ৫২ টি বিভিন্ন পন্য মানুষ বিশ্বাষের সাথে খেয়ে থাকে যেখানে তাদের মতো প্রতিষ্ঠান মানুষকে ভেজাল খাওয়াচ্ছে সেখানে মৌবনের তো কোনো মেশীন পত্রই নেই তাহলে মৌবন কিভাবে সঠিক জিনিস খাওয়াবে । কয়েকজন ব্যবসায়ী বলছেন আমরা জেনে বুঝে মানুষ কে আর বিষ খাওয়াবোনা যে সব কোম্পানী কে আমরা সম্মান দিয়ে থাকি তারা আমাদের দিয়ে তা ব্যবসা করছে এগুলো তো আমাদের সন্তান পরিবার পরিজন খাচ্ছ্ েতা হলে আমরা টাকা দিয়ে কি বিষ খাচ্ছি মেরে ফেলছি ধীরে ধীরে নিজের পরিবার পরিজনদের । আমরা আর কাউকে বিশ্বাস করতে পারছিনা তাই মৌবন কে প্রমান সহ আইনের আওতায় আনা হউক। তবে আশারবানী হচ্ছে মান নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউট (বিএসটিআই) বলেছে, এসব ভেজাল পণ্যে অভিযান অব্যাহত আছে ।


     এই বিভাগের আরো খবর